President

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে লক্ষ্য করে একাধিকবার হামলা হয়েছে৷ প্রতিবারই রক্ষা পেয়েছেন৷ তেমনই একটি ঘটনা ঘটেছিল ২৮ বছর আগে৷ সেই মামলায় দোষী সাব্যস্ত ১১ জনকে ২০ বছরের কারাদণ্ডের সাজা দিল আদালত৷ এক আসামিকে বেকসুর ঘোষণা করা হয়েছে৷
বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে খুনের ষড়যন্ত্র করা হয়েছিল ১৯৮৯ সালের ১০ অগস্ট৷ মধ্যরাতে ঢাকার বিখ্যাত ৩২ নম্বর ধানমণ্ডির বাড়িতেই ছিলেন হাসিনা৷ তখনই হামলা চালায় ফ্রিডম পার্টি৷ বাড়ি লক্ষ্য করে গ্রেনেড নিক্ষেপ করা হয়। চালানো হয়েছিল গুলি৷

মামলার বিবরণীতে বলা হয়েছে, ফ্রিডম পার্টির সদস্য কাজল ও কবিরের নেতৃত্বে ১০-১২ জনের একটি দল ৩২ নম্বরের বাড়িতে অতর্কিত গুলিবর্ষণ ও বোমা হামলা করে। পরে হামলাকারীরা ‘কর্নেল ফারুক-রশিদ জিন্দাবাদ’ বলে স্লোগান দিতে দিতে পালিয়ে যায়। ২০০৯ সালের ৫ জুলাই আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করে আদালত।

শেখ হাসিনাকে খুনের চেষ্টা জড়িত ফ্রিডম পার্টির ১২ আসামির নাম -গোলাম সারোয়ার ওরফে মামুন, জজ মিয়া, ফ্রিডম সোহেল, সৈয়দ নাজমুল মাকসুদ মুরাদ, গাজী ইমাম হোসেন, খন্দকার আমিরুল ইসলাম কাজল, মিজানুর রহমান, হোমায়েন কবির, ম. শাজাহান বালু, লেফটেন্যান্ট কর্নেল আবদুর রশীদ, জাফর আহম্মদ এবং এইচ কবির। এদের মধ্যে প্রথম চারজন কারাগারে, পরের পাঁচজন জামিনে ও শেষের তিনজন পলাতক ৷

২৯ অক্টোবর, ২০১৭ ১৪:৪০ পি.এম