President

আগামী ৩০ নভেম্বর ঢাকায় আসছেন খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের সর্বোচ্চ ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস। পরদিন ০১ ডিসেম্বর রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে হাজির হবেন পোপ।

এদিন সকাল ১০টা থেকে ১২টা পর্যন্ত পোপ সর্বসাধারণকে দর্শন দেবেন। এ সময় ১৬ জন যাজককে অভিষিক্ত করা হবে। খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের মানুষ ছাড়াও এদিন যে কোনো ধর্মাবলম্বী মানুষ পোপকে দেখার এবং তার কথা শোনার সুযোগ পাবেন।

পোপের বাংলাদেশ সফরের প্রধান সমন্বয়ক বিশপ শরৎ ফ্রান্সিস গমেজ বুধবার তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর সঙ্গে সাক্ষাৎকালে তিনি এসব তথ্য জানান।

বিশপ শরৎ আরও জানান, ৩০ নভেম্বর পুরো দিনটা জুড়েই থাকবে রাষ্ট্রীয় সফর কর্মসূচি। এদিন স্মৃতিসৌধ, ধানমণ্ডিতে বঙ্গবন্ধু স্মৃতিজাদুঘর পরিদর্শন ও রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন পোপ।

পরদিন সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের অনুষ্ঠানের পর দুপুরে ভ্যাটিকান সিটির ঢাকা অ্যাম্বেসিতে পোপের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এদিন বিকেলে রমনা চার্চে আন্তঃধর্মীয় সমাবেশে সকল ধর্মের নেতাদের সঙ্গে এক সেমিনারে অংশ নেবেন পোপ।

ডিসেম্বরের দ্বিতীয় দিন সকালে তেজগাঁও চার্চ এবং সেখানে মাদার তেরেসা অরফানেজ সেন্টার পরিদর্শনের পর বিকেলে নটরডেম কলেজে যুব সম্মেলন এবং নটরডেম ইউনিভার্সিটির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন।

২৫ অক্টোবর, ২০১৭ ১৮:১৯ পি.এম