President

সরফরাজ আহমেদ-আসাদ শফিকের লড়াইটা কাল যে রোমাঞ্চ জমিয়ে তুলল, সেটির উত্তেজনা সকালেই শেষ। দুবাই টেস্টের পঞ্চম দিনে জয়ের দেখা পেতে একটা সেশনও দরকার হয়নি শ্রীলঙ্কার। পাকিস্তানকে ৬৮ রানে হারিয়ে নতুন এক ইতিহাস গড়েছে শ্রীলঙ্কা। সিরিজও ২-০তে জিতে নিল তারা।

প্রথমবারের মতো দেশের বাইরে পাকিস্তানকে ধবলধোলাই করেছে শ্রীলঙ্কানরা। তৃতীয় ইনিংসে ১০০-এর নিচে অলআউট হয়েও টেস্ট জয়ের এটি চতুর্থ ঘটনা। পাকিস্তানের হোম সিরিজে শ্রীলঙ্কা সর্বশেষ ট্রফি জিতেছিল ২০০০ সালে।
৩১৭ রানের লক্ষ্যে নেমে কাল ৫২ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলে পাকিস্তান ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করে সরফরাজ-আসাদের ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে ভর করে। ১৭৩ রানের দুর্দান্ত এক লড়াকু জুটি গড়ে শ্রীলঙ্কার আত্মা কাঁপিয়ে দেন দুজন। ৫ উইকেটে ১৯৮ রান চতুর্থ দিন শেষ করা পাকিস্তান আজ বাকি ৫ উইকেটে যোগ করতে পেরেছে ৫০ রান।
আগের দিন ৫৭ রানে অপরাজিত সরফরাজ দিনের শুরুতেই ফিরে যান দিলরুয়ান পেরেরার শিকার হয়ে। এক প্রান্তে সতীর্থদের যাওয়া আসার মিছিল শুরু হলেও উইকেট আগলে ছিলেন আসাদ। সুরঙ্গা লাকমলের বলে মেন্ডিসের শিকার হয়ে নবম উইকেটে হিসেবে ১১২ রান করা আসাদ ফিরলে পাকিস্তানের পরাজয় নিশ্চিত হয়ে যায় অনেকটাই।
২৪৮ রানে অলআউট হয়ে পাকিস্তান প্রথমবারের মতো নিজেদের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে পেল ধবলধোলাইয়ের তিক্ত স্বাদ। আর নিজেদের প্রথম দিবারাত্রির টেস্টটা জয় দিয়ে স্মরণীয় করে রাখল শ্রীলঙ্কা।
মিসবাহ-ইউনুসদের বিদায়ের পর এই প্রথম সিরিজ খেলতে নেমেছিল পাকিস্তান। দুই বুড়ো সৈনিক দলের কতটা ভার বয়েছেন, তা বোঝা গেল। আর তরুণ শ্রীলঙ্কাও যেন নতুন দিশা খুঁজে পেল এই সিরিজ জয়ে। এবার দুই দলের ওয়ানডেতে নেমে পড়ার পালা।

১০ অক্টোবর, ২০১৭ ১৮:২৮ পি.এম